উক্তি : গুণীজনের ২০০ বিখ্যাত বাণী

উক্তি /বাণী: গুণীজনের বাণী বা মনীষীদের উক্তি মানুষের জীবনে বড় ধরনের অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে।  মানুষের জীবন ক্ষণস্থায়ী কিন্তু মানুষ বেঁচে থাকে তার কর্মে। পৃথিবীর বরেণ্য ব্যক্তি বর্গ আজও  মৃত্যুর পরেও বেঁচে আছেন তাঁদের কর্মকান্ডের জন্য। তাঁদের এসব কর্মকান্ড পর্যালোচনা করলে দেখা যায় তাঁরা তাঁদের জীবান-দর্শন ফুটিয়ে তুলেছেন তাঁদের বিভিন্ন বাণী/উক্তি প্রদানের মাধ্যমে। এসব বাণী উৎসগত বিভিন্নতা থাকতে পারে। হতে পারে এসব বাণীর উৎস কখনো কবিতা, কখনো নাটক,কখনো গল্প আবার কখনো বা উপন্যাস; তবে একথা বলার অপেক্ষা থাকে না উৎস যেটাই হোক না কেন এসব বাণীর উৎসের মুলে রযেছে গভীর জীবনবোধ যা মানুষের দৈনন্দিন জীবনে চিন্তা চেতনার উপর গভীর ভাবে  প্রভাব ফেলতে সক্ষম। নিম্নে তেমনি কিছু বিখ্যাত ব্যক্তির বিখ্যাত উক্তি/ বাণী নিম্নে প্রকাশ করা হলো্ আশাকরি এসব গুণীজনের বিখ্যাত বাণী/ উক্তি আপনাদের অনেক ভালো লাগার পাশাপাশি জীবন চলার পথে পাথেয় হয়ে থাকবে।

উক্তি/বাণী:

০১। আমরা সবাই পাপী; আপন পাপের বাটখারা দিয়ে; অন্যের পাপ মাপি !!

-কাজী নজরুল ইসলাম।

০২। মানুষ প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে যেই ব্যবহারটা করে সেটাই তার আসল চরিত্র।

-রেদোয়ান মাসুদ

০৩। যে বিজ্ঞানকে অল্প জানবে সে নাস্তিক হবে, আর যে ভালো ভাবে বিজ্ঞানকে জানবে সে অবশ্যই ঈশ্বরে বিশ্বাসী হবে।

-ফ্রান্সিস বেকন।

০৪। জীবন বাই সাইকেল চালানোর মত একটা ব্যাপার, পড়ে যেতে না চাইলে তোমাকে সামনে চলতে হবে।

-আইনস্টাইন

০৫। একজন ঘুমন্ত ব্যক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যক্তিকে জাগ্রত করতে পারে না।

– শেখ সাদি।

০৬। ধার্মিকতা আর ধর্মান্ধতা এক জিনিস নয়। ধার্মিকতা মানুষকে আলোর পথে নিয়ে যায় আর ধর্মান্ধতা মানুষকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়। এ দেশের মানুষকে আমি ধার্মিক বলব না কারণ এ দেশের বেশিরভাগ মানুষই ধর্মান্ধ।

-রেদোয়ান মাসুদ

০৭। যদি উড়তে না পার, তবে দৌড়াও; যদি দৌড়াতে না পার, তবে হাঁটো; হাঁটতে না পারলে হামাগুড়ি দাও। যে অবস্থাতেই থাকো, সামনে চলা বন্ধ করবে না।

– মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র

০৮। পুরুষতান্ত্রিক সভ্যতার শ্রেষ্ঠ শহীদের নাম মা।

-হুমায়ূন আজাদ।

০৯। পরিবার হলো- জীবনের ঝড়ো সমুদ্রের একটি লাইফজকেট ।

-জে কে রাউলিং।

১০। নিজের বোকামি বুঝতে পারার পর কারো দুঃখ হয়, কারো হাসি পায়।

-সমরেশ মজুমদার।

১১। জীবন চলার পথে বাঁধা আসতেই পারে তাই বলে থেমে যাওয়ার কোনো অবকাশ নেই। যেখানে বাঁধা আসবে সেখান থেকেই আবার শুরু করতে হবে।

-রেদোয়ান মাসুদ

১২। ভীরুরা মরার আগে বারে বারে মরে। সাহসীরা মৃত্যুর স্বাদ একবারই গ্রহণ করে।

– উইলিয়াম শেক্সপিয়র।

১৩। প্রেম হল সিগারেটের মতো, যার আরম্ভ হল অগ্নি দিয়ে, আর শেষ পরিণতি ছাই দিয়ে।

–জর্জ বার্নার্ডশ।

১৪। অতীতের ভুল নিয়ে আফসোস করো না।  সামনের কাজগুলো নির্ভুল ভাবে করার জন্য তোমার সব শক্তিকে কাজে লাগাও।

– ডেনিস ওয়েটলি

১৫। ভালবাসা যা দেয় তার চেয়ে বেশী কেড়ে নেয় ।

– টেনিসন।

১৬। ভালোবাসা পাওয়ার চাইতে ভালোবাসা দেওয়াতেই বেশি আনন্দ।

-জর্জ চ্যাপম্যান।

১৭। একজন মানুষের বন্ধুত্ব তার সম্পত্তি পরিমাপের অন্যতম মাপকাঠি।

-চার্লস ডারউইন।

১৮। প্রাপ্তি আর প্রত্যাশার পার্থক্য হলো দুঃখ। তাই নিজের প্রত্যাশাটা একটু কমিয়ে ফেলুন, দেখবেন আপনার দুঃখও কমে গেছে।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৯। একটা ভালো বই একশো জন বন্ধুর সমান, আর একজন ভালো বন্ধু একটা লাইব্রেরির সমান।

-এপিজে আব্দুল কালাম।

২০। দুর্ভাগ্যবান তারাই যাদের প্রকৃত বন্ধু নেই।

– এরিস্টটল।

২১। বাস্তবতা আদর্শের সাথে খাপ খায় না, তবে তা নিশ্চিত করে।

-গুস্তাভে ফ্লুবার্ট।

২২। আমি এমনভাবে পা ফেলি যেন মাটির বুকেও আঘাত না লাগে। আমার তো কারুকে দুঃখ দেবার কথা নয়।

-সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়।

২৩। আমার সব থেকে ভালো বন্ধু হল আয়না, কারন আমি যখন কাঁদি তখন সে হাঁসে না।

-চার্লি চ্যাপলিন।

২৪। মৃত্যুর যন্ত্রণার চেয়ে বিরহের যন্ত্রণা যে কতো কঠিন, কতো ভয়ানক তা একমাত্র ভুক্তভুগিই অনুভব করতে পারে।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

২৫। প্রত্যেককে বিশ্বাস করা বিপদজনক, কিন্তু কাউকে বিশ্বাস না করা আরো বেশী বিপদজনক।

-আব্রাহাম লিংকন।

২৬।  যে বিশ্বাস করতে পারে, সে অর্জন করতে পারে।

-মহাজাতক।

২৭। ভবিষ্যতে যার কাছ থেকে তুমি সবচেয়ে বড় কষ্টটি পাবে, আজ সে তোমার সবচেয়ে কাছের কোনো একজন।

-রেদোয়ান মাসুদ

২৮। যদি তুমি তোমার কাজকে স্যালুট কর, দেখো তোমায় আর কাউকে স্যালুট করতে হবে না। কিন্তু তুমি যদি তোমার কাজকে অসম্মান কর, অমর্যাদা কর, ফাঁকি দাও, তাহলে তোমায় সবাইকে স্যালুট করতে হবে।

– এ পি জে আব্দুল কালাম

২৯। নারী কভু নাহি চায় একা হতে কারো এরা দেবী, এরা লোভী যত পূজা পায় এরা চায় তত আরো ইহাদের অতিলোভী মন একজনে তৃপ্ত নয় এক পেয়ে সুখী নয় যাচে বহুজন l

-কাজী নজরুল ইসলাম।

৩০। যখন আপনি কাউকে ভালোবাসেন তখন আপনার জমিয়ে রাখা সব ইচ্ছেগুলো বেরিয়ে আসতে থাকে।

-এলিজাবেথ বাওয়েন।

৩১। স্বার্থপরতার প্রতিটি কাজ বা স্বার্থপরতার  চিন্তাভাবনা  আমাদের কোনো বিষয়-বস্তুর সাথে যুক্ত করে তোলে এবং সঙ্গেসঙ্গে আমরা দাস হয় যাই।

– স্বামী বিবেকানন্দ ।

৩২। নিজেকে পুরোপুরিভাবে বিশ্বাস করতে যে ভয় করে সে কখনো জীবনে সফল হতে পারবেনা।

-জয় কালিগ।

৩৩। টিয়া পাখির মতো মুখস্ত করে বড় বড় সার্টিফিকেট অর্জন করে বড় বড় চাকরি পাওয়াকে শিক্ষা বলে না, শিক্ষা হচ্ছে সেটা যা একজন মানুষের ভিতরের কুশিক্ষাকে দূর করে সমাজের পরিবর্তনে এগিয়ে আসার উৎসাহ যোগায়।

-রেদোয়ান মাসুদ

৩৪। ঘুরিয়া ফিরিয়া যেমন করিয়াই চলি না কেন শেষকালে এই অলঙ্ঘ্য সত্যে আসিয়া ঠেকিতেই হয় যে, শিক্ষকের দ্বারাই শিক্ষাবিধান হয়, প্রণালীর দ্বারা হয় না।

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৩৫। যতক্ষণ পর্যন্ত আপনি আপনার হৃদয়কে না জানবেন ততক্ষণ পর্যন্ত আপনি মনের শান্তি পাবেন না।

– জর্জ মাইকেল।

৩৬। কৃতজ্ঞ কুকুর অকৃতজ্ঞ মানুষের চেয়ে শ্রেয়৷

– শেখ সাদি

৩৭। তিন রকম দোয়া নি:সন্দেহে কবুল হয়। মজলুমের দোয়া,মুসাফিরের দোয়া আর সন্তানের জন্য পিতা-মাতার দোয়া।

-মহানবী হজরত মুহম্মদ (স.)।

৩৮। প্রেমের মধ্যে  ভয় না থাকলে রস নিবিড় হয়না।

-রবীন্দ্রনাথ  ঠাকুর।

৩৯। কুৎসিত মন একটি সুন্দর মুখের সমস্ত সৌন্দর্য কেড়ে নেয়।

– লটমাস নুন।

৪০। অতিদূর পরপারে গাঢ় নীল রেখার মতো বিদেশের আভাস দেখা যায়– সেখান হইতে রাগ-দ্বেষের দ্বন্দ্বকোলাহল সমুদ্র পার হইয়া আসিতে পারে না।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৪১। আমাদেরকে প্রচুর টাকা ঢালতে হবে আমাদের স্বভাবের পেছনে, যদি তা আমরা বদলাতে চাই।

-বিল গেটস।

৪২। সার্টিফিকেট বাড়ছে মানেই এই নয় যে দেশ ভারমুক্ত হচ্ছে, এ দেশে সার্টিফিকেট বাড়ছে মানে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যাটাও ভারী হচ্ছে।

-রেদোয়ান মাসুদ

৪৩। একশত মূর্খ পুত্রের চেয়ে একটি গুণী পুত্র বরং ভাল। একটি চন্দ্রই অন্ধকার দূর করে, সকল তারা মিলেও তা পারে না।

-চাণক্য।

৪৪। প্রতারণা হচ্ছে অন্তরের কালোত্ব, মুখমন্ডলের মলিনতা।

-কাফাভী।

৪৫। ভালোবাসা এবং যত্ন দিয়ে মরুভূমিতেও ফুল ফোটানো যায়

– ডেভিড রস ।

৪৬। যারা বন্ধুদের অপমান করে, বন্ধুদের অপমানিত হতে দেখে কাপুরুষের মতো নীরব থাকে তাদের সঙ্গে সংসর্গ করো না।

-সিনেকা।

৪৭। জীবন মানেই সাফল্য এবং সাফল্য মানেই দু্র্ভোগ।

-ভ্যানলুন।

৪৮। যেহেতু আমরা বাস্তবতা পরিবর্তন করতে পারি না, আসুন আমরা চোখ পরিবর্তন করি যা বাস্তবতা দেখায়।

-নিকোস কাজান্টজাকিস।

৪৯। বিয়ের মাধ্যমে দুটো জিনিস ঘটে থাকে এক হলো যদি আপনি ভালো বউ পান তবে আপনি ভালো জীবন পাবেন আর যদি খারাপ বউ পান তবে দার্শনিক হয়ে যাবেন।

-সক্রেটিস।

৫০। যে মানুষ যত বেশী সত্য গোপন করতে পারে সে তত বেশী সৎ-চরিত্রবান।

– হুমায়ূন আজাদ।

৫১। যার যেটা নেই সে কখনও সেটার মূল্য বুঝে না, একমাত্র সেই ব্যক্তিই সেটার মূল্য বুঝে যার কোনো জিনিস পূর্বে ছিল কিন্তু এখন নেই।

-রেদোয়ান মাসুদ

৫২। ধনীরা যে মানুষ হয় না, তার কারণ ওরা কখনো নিজের অন্তরে যায় না। দুঃখ পেলে ওরা ব্যাংকক যায়, আনন্দে ওরা আমেরিকা যায়। কখনো ওরা নিজের অন্তরে যাতে পারে না, কেননা অন্তরে কোনো বিমান যায় না।

-হুমায়ূন আজাদ।

৫৩। একদা ছিল না ‘জুতো’ চরণ-যুগলে দহিল হৃদয় মম সেই ক্ষোভানলে। ধীরে ধীরে চুপি চুপি দুঃখাকুল মনে, গেলাম ভজনালয়ে ভজন কারণে!

-কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার।

৫৪। অর্থ দিয়ে জীবন কেনা যায় না৷

– বব মার্লে।

৫৫। নিম্ন মধ্যবিত্ত বা মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে আসা মেয়েগুলো তাদের সব রকম কনজারভেটিভ ধারনা বুকে পুষে রেখে এমন ভাবভঙ্গী করে যেন পৃথিবীর সব ছেলেই তাদের দিকে হামলে পড়ছে।

-সমরেশ মজুমদার।

৫৬। প্রত্যেক মেয়েই নিজের জন্য একটা নুনু চায় ।এই নুনুর জন্যই তারা পুরুষদের

হিংসা করে!

-সিগময়েড ফ্রয়েড।

৫৭। কম বয়েসী মেয়ে হল রসগোল্লার মত যেখানে রাখবে সেখানেই পিঁপড়ে ধরবে!

-শংকর।

৫৮। একটি কুবৃক্ষের কোটরের আগুন থেকে যেমন সমস্ত বন ভস্মীভূত হয়, তেমনি একটি কুপুত্রের দ্বারাও বংশ দগ্ধ হয়।

-চাণক্য।

৫৯। যে প্রতারণা করে, সে আমার দলভুক্ত নয়।

-হযরত মোহাম্মদ (সাঃ)

৬০। আমার তৃষ্ণা তোমার সুধা তোমার তৃপ্তি আমার সুধা।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৬১। প্রেমের আনন্দ থাকে স্বল্পক্ষণ কিন্তু বেদনা থাকে সারাটি জীবন।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৬২। মা হলো স্নেহের ভান্ডার যা কখনও নিঃশেষ হয় না।

-রেদোয়ান মাসুদ

৬৩। তাকে যে আমি ভালোবাসি তার রুপে গুনে নয়, তাকে না ভালোবেসে থাকতে পারি না।

-সমরেশ মজুমদার।

৬৪। প্রেমের মধ্যে ভয় না থাকিলে রস নিবিড় হয় না।

–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৬৫। ধোয়া, টাকা আর প্রেম কিছুতেই চেপে রাখা যায় না ঠিক ফুটে বেরুবেই।

-শংকর।

৬৬। বন্ধুত্ব টাকার মতো, রক্ষা করার চাইতে তৈরি করা সহজ।

– বাটলার।

৬৭। আমাদের বন্ধুদেরকে অবিশ্বাস করা হল তাদের দ্বারা প্রতারিত হওয়ার চেয়ে অধিক লজ্জাকর।

-কনফুসিয়াস।

৬৮। কাউকে সারা জীবন কাছে পেতে চাও? তাহলে প্রেম দিয়ে নয় বন্ধুত্ব দিয়ে আগলে রাখো। কারণ প্রেম একদিন হারিয়ে যাবে কিন্তু বন্ধুত্ব কোনদিন হারায় না

-উইলিয়াম শেক্সপিয়র।

৬৯। বন্ধু কি? এক আত্মার দুইটি শরীর।

-এরিস্টটল।

৭০। শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হলো একটা শুন্য মস্তিষ্ককে একটা উন্মুক্ত মস্তিষ্ক দ্বারা প্রতিস্থাপিত করা।

-ম্যালকম এস. ফোর্বস।

৭১। বাবা হলেন একটি বাড়ির ছাদ, যে নিজে পুড়ে সন্তানদের ছায়া দেয় কিন্তু মুখ ফুটে কিছু বলে না।

-রেদোয়ান মাসুদ

৭২। বিয়ে হচ্ছে বুদ্ধির কাছে কল্পনার জয় আর দ্বিতীয় বিয়ে হচ্ছে অভিজ্ঞতার কাছে আশার জয়।

-স্যামুয়েল জনসন।

৭৩। যদি তোমারে নাহি পরে মনে ভেবে নিও সে তো আসিবে না ফিরে।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৭৪।সত্যিকার ভালোবাসার পথ কখনোই মসৃণ হয় না।

-শেকসপিয়র।

৭৫। বিশ্বাস জীবনকে গতিময়তা দান করে, আর অবিশ্বাস জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে।

-জন মিলটন।

৭৬। মানুষ হয়তো সব সময় তোমার মুখের কথা বিশ্বাস করবে না কিন্তু তোমার কাজে তারা সবসময় বিশ্বাস করবে ।

– হিটলার।

৭৭। একটি কবিতা আসে হয় বিশাল সুখ থেকে না হয় কষ্ট থেকে।

-এ পি জে আবদুল কালাম।

৭৮। কেন পান্থ ক্ষান্ত হও হেরি দীর্ঘ পথ, উদ্যম বিহনে কার পুরে মনোরথ?

-কৃষ্ণ চন্দ্র মজুমদার

৭৯। প্রতিটা মানুষই তার নিজের কাছে নির্ভুল। আর এ জন্যেই মানুষ ভুল করে, কারণ ভুলকে নির্ভুল ভেবেই মানুষ সবচেয়ে বড় ভুল করে থাকে।

-রেদোয়ান মাসুদ

৮০। বোকা, স্বার্থপর লোকেরা সবসময় নিজের কথা ভেবে থাকে এবং তার ফল সর্বদা নেতিবাচক হয়। বুদ্ধিমান ব্যক্তিরা অন্যদের সম্পর্কে চিন্তা করে, তাদের যতটা সম্ভব সহায়তা করে এবং ফলস্বরূপ সুখী হয়। আপনার জন্য এবং অন্যদের জন্য প্রেম এবং মমত্ববোধ উপকারী। অন্যের প্রতি আপনার দয়া দেখানোর মধ্য দিয়ে আপনার মন এবং হৃদয় শান্তিতে উন্মুক্ত হবে।

– দলাই লামা ।

৮১। প্রকার মানসিক অসন্তুষ্টি ও দ্বিধা বাতিরেকেই তাদের যা কিছু আছে একে অন্যের জন্য অকাতরে ব্যয় এ কারণেই স্বামী-স্ত্রী উভয়ের এটা অবশ্য কর্তব্য যে, তারা সৌহার্দ্যপূর্ণ জীবন যাপন করবে এবং কোনো করবে! আল্লাহ তাআলা বলেছেন, আর তোমরা তাদের (স্ত্রীদের) সাথে উত্তম ব্যবহার কর।

-আল কুরআন।

৮২। সেই কাপুরুষ যে স্ত্রীর কাছে প্রেমিক হতে পারেনি।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

৮৩। একজন প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকের বেতন কেন একজন দারোয়ানের মতো হবে? কেন তাঁদের সঙ্গে আপনারা পিয়নের মতো আচরণ করবেন? যদি তাঁদের সঙ্গে দারোয়ানের মতো আচরণ করেন, আপনার ছেলেমেয়েদেরও দারোয়ানের মনোবৃত্তি হবে।

– মুনতাসীর মামুন।

৮৪। শিক্ষা হলো সেই জিনিসটা যা একজন স্কুলে যা শিখেছিল তা ভুলে যাওয়ার পরও মনে রাখতে পারে।

-আলবার্ট আইন্সটাইন।

৮৫। আর্থিক সচ্ছলতা বন্ধু আনে, কিন্তু ভালোবাসা আনে না।

-জোসেফ কনরাড।

৮৬। পিপড়ে আর বুনোরা আগন্তুককে অক্কা পাইয়ে ছাড়ে।

– বারট্রান্ড রাসেল।

৮৭। প্রথমে যদি কাউকে খারাপ লাগে , তবে নির্ঘাত তাকে ভাল লাগবে পরে।

-দয়ভস্কি।

৮৮। পরস্পর পরস্পরের জুলুম ঘাড় পেতে বহন করবে এই জন্যই তো বিবাহ।

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৮৯। মনের কলুষতাই মানুষের আত্না ও দৃষ্টিকে কদর্যতা দান করে এবং সেই কদর্যতাই নিজের এবং পরিবারের লোকদের জীবনকে বিভীষিকাময় করে তোলে।

– স্যার জন ফিলিপস।

৯০। একজন প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তার প্রয়োজন হয়ে থাকার চেয়ে একজন চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারির প্রিয়জন হওয়া অনেক সম্মানের, গৌরবের।

-রেদোয়ান মাসুদ

৯১। প্রতিদিন কিছু ইচ্ছেকে পুড়িয়ে মারি প্রতিদিন কিছু ইচ্ছেকে পাঠাই নির্বাসনে ভালবাসা কি ভীষণ প্রতারক হৃদয় ভেঙেছে যার সেই জানে।

-জয় গোস্বামী।

৯২। সবচেয়ে নির্বোধ নারীও একজন বুদ্ধিমান পুরুষকে সামলাতে পারে কিন্তু নির্বোধকে সামলাতে প্রয়োজন বুদ্ধিমতী নারী।

-রুডইয়ার্ড কিপলিং।

৯৩। যখন একা থাকার অভ্যাস হয়ে যায় ঠিক তখনি সৃষ্টিকর্তা কিছু মানুষের সন্ধান দেন। যখন তাদেরকে নিয়ে ভালো থাকার অভ্যাস হয়ে যায়, ঠিক তখনি আবার একা হয়ে যেতে হয়।

-জর্জ বার্নার্ড শ।

৯৪। ওহ, এতো ভাল তাকে আমি বেসেছি , ঘৃনার কোন অনুভূতিই না থাকে তার প্রতি। _

-জাঁ রাসিন।

৯৫। ভালবাসা তালাবদ্ধ হ্রদয়ের দরজা মুহূর্তে খুলে দেয় ।

– টমাস।

৯৬। বন্ধুত্ব শরীরের সুস্বাস্থ্যের মতো। যা হারিয়ে যাওয়া পর, সত্যিকারের মূল্য বোঝা যায়। যত ক্ষণ সাথে থাকে, আমরা তার সঠিক মূল্য বুঝতে পারি না।

-চার্লস কালেব কলটন।

৯৭। জীবন তৃপ্তি দেয় যতটুকু, অতৃপ্তি দেয় তার চেয়ে বেশি

-ক্রিস্টিনা রসের্ট।

৯৮। বাস্তবতার বিরুদ্ধে যুদ্ধের একমাত্র অস্ত্র হলো “কল্পনা”

-লুইস ক্যারল।

৯৯। বিয়েকে ভালোবাসি একারণেই যে এর মাধ্যমে এমন একজনকে পাওয়া যাবে যাকে সারাজীবন বিরক্ত করা যাবে।

-রিতা রুডনার।

১০০। বিশ্বাস জীবনকে গতিময়তা দান করে, আর অবিশ্বাস জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে ।

-জন মিল্টন।

১০১। চরিত্র হচ্ছে গাছের মত, পরিচিতি ছায়ার মত।

– আব্রাহাম লিংকন।

১০২। মানুষ অহংকারগুলো তার সাথেই দেখায় যে তাকে খুব বেশি ভালোবাসে।

-রেদোয়ান মাসুদ

১০৩। বিরাট পশুপালের মাঝেও শাবক তার মাকে খুঁজে পায়। অনুরূপ যে কাজ করে অর্থ সবসময় তাকেই অনুসরণ করে।

– চাণক্য।

১০৪। শুধু পরনারীর সঙ্গ নিয়ে সারা জীবন কাটানো যায় না।

-যাযাবর।

১০৫। বিশ্ব যখন এগিয়ে চলেছে, আমরা তখনো বসে বিবি তালাকের ফতোয়া খুঁজি কোরান-হাদিস চষে।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

১০৬। তোমরা আমাকে শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাদের শিক্ষিত জাতি দেবো।

-নেপোলিয়ন বোনাপার্ট।

১০৭। মাতা পিতাকে কষ্ট দিবে না। তারা যদি তোমাকে তোমার সন্তান সন্ততি ও বিষয় সম্পদ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয় তবুও।

-আল হাদিস

১০৮। পুরো দুনিয়াটাই একটা রঙ্গমঞ্চ, আর প্রতিটি নারী ও পুরুষ সে মঞ্চের অভিনেতা; এই মঞ্চে প্রবেশ পথও আছে আবার বহির্গমণ পথও আছে, জীবনে একজন মানুষ এই মঞ্চে অসংখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন।

-উইলিয়াম শেক্সপিয়র।

১০৯। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম প্রেম বলে কিছু নেই। মানুষ যখন প্রেমে পড়ে, তখন প্রতিটি প্রেমই প্রথম প্রেম।

– হুমায়ূন আজাদ।

১১০। প্রথম বিয়ে হচ্ছে বুদ্ধির কাছে কল্পনার জয় আর দ্বিতীয়বিয়ে হচ্ছে অভিজ্ঞতার কাছে আশার জয়।

-স্যামুয়েল জনসন।

১১১। কোনো কিছুকে ভালোবাসা হলো সেটি বেঁচে থাক তা চাওয়া।

– কনফুসিয়াস।

১১২। স্বপ্ন শুধু হাসায় না, কাদায়ও।

-রেদোয়ান মাসুদ

১১৩। বিয়ে হচ্ছে বুদ্ধির কাছে কল্পনার জয় আর দ্বিতীয় বিয়ে হচ্ছে অভিজ্ঞতার কাছে আশার জয়।

– স্যামুয়েল জনসন।

১১৪। কেউ যদি তোমার ভালবাসার মূল্য না বুঝে তবে নিজেকে নিঃস্ব ভেব না।জীবনটা এত তুচ্ছ না।

-বসন্ত বাউরি।

১১৫। প্রকৃতির সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টির নাম বন্ধুত্ব।

-এমারসন।

১১৬। বন্ধুদের মধ্যে সবকিছুতেই একতা থাকে।

-প্লেটো।

১১৭। বিশ্বাস হচ্ছে বরফের মতো, খুব শীঘ্রই তা গলে যেতে পারে৷

– রবার্ট ফ্রস্ট

১১৮। আমাদের রহস্যময়তার পরীক্ষণে প্রাপ্ত সবচেয়ে সৌন্দর্যময় জিনিসগুলো হলো শিল্প, বিজ্ঞান এবং বন্ধুত্ব।

-অ্যালবার্ট আইনস্টাইন।

১১৯। আমার ভালো বন্ধুদের কথা মনে করে আমি যতোটা সুখী, অন্য কোনো ভাবে ততোটা সুখী হতে পারিনা।

-উইলিয়াম শেক্সপিয়ার।

১২০। বাস্তব জগতের একটি সীমানা আছে, কিন্তু কল্পনার জগতের কোন সীমা নাই ।

-জ্যঁ জ্যাক রুশো।

১২১।এরা সুখের লাগি চাহে প্রেম, প্রেম মেলে না, শুধু সুখ চলে যায় ”

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১২২। এ সখি বিরহ মরন নিরদন্দ্ব।

-গোবিন্দ দাস।

১২৩। কাউকে ভুলতে চাইলে তাকে ক্ষমা করে দিন, না হলে জীবনেও তাকে ভুলতে পারবেন না।

-রেদোয়ান মাসুদ

১২৪। অন্ন! অন্ন! যে ভগবান এখানে আমাকে অন্ন দিতে পারেন না তিনি যে আমাকে স্বর্গে অনন্ত স্বুখে রাখিবেন – ইহা আমি বিশ্বাস করি না।

-স্বামী বিবেকানন্দ।

১২৫।  আমি কখনো নিজের বিশ্বাসের জন্য প্রাণ দেব না, কারণ সেটি ভুল হতে পারে ।

-বার্ট্রান্ড রাসেল।

১২৬। কষ্ট তোমাকে পরিবর্তন করে না বরং এটা তোমার ভিতরের তুমিটাকে বের করে আনে।

-জন গ্রিন।

১২৭। যখন একা থাকার অভ্যাস হয়ে যায় ঠিক তখনি সৃষ্টিকর্তা কিছু মানুষের সন্ধান দেন। যখন তাদেরকে নিয়ে ভালো থাকার অভ্যাস হয়ে যায়, ঠিক তখনি আবার একা হয়ে যেতে হয়।

– জর্জ বার্নার্ড শ।

১২৮। প্রত্যেকের বুকের নিভৃতে কিছু দগ্ধ ক্ষত থাকে লুকানো, কিছু অসম্পূর্ণ নির্মাণ, ভাংগাচোরা গেরস্হালি ঘরদোর, প্রত্যেকের নিজস্ব কিছু নিদ্রাহীন রাত্রি থাকে যাকে চিরদিন নষ্ট নোখের মতো রেখে দিতে হয় কোমল অনিচ্ছার বাগানে যাকে শুধু লুকিয়ে রাখাতেই সুখ, নিজের নিভৃতে রেখে গোপনে পোড়াতেই একান্ত পাওয়া।

– রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ।

১২৯।অধিকারের বোধের সাথে স্বার্থপরতা আসে এবং স্বার্থপরতা দুঃখ নিয়ে আসে।

– স্বামী বিবেকানন্দ।

১৩০। নিজেকে পরিশুদ্ধ করতে হলে নিজের ক্ষমতা সম্পর্কে জানতে হবে।

– ফ্রান্সিস টম্পসন।

১৩১। মন অনেক কিছুই চাইবে কিন্তু তা বিবেক দিয়ে বিচার করবে। তাহলেই তুমি বুঝবে কোনটা তোমার করা উচিত আর কোনটা করা উচিত নয়।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৩১।  হৃদয়কে শিক্ষিত করা ব্যতীত নিজের মস্তিষ্ককে শিক্ষিত করা আদৌ কোনো শিক্ষার পর্যায়ে পড়ে না।

-এরিস্টটল।

১৩২। পড় তোমার প্রভুর নামে, যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন।

– আল কুরআন।

১৩৩। যেই শিক্ষা গ্রহন করে যেই শিক্ষার গুণে গুনান্নিত হয়ে ছেলে মেয়ে সাজে, মেয়ে ছেলে সাজতে পছন্দ করে, ঐ শিক্ষাকে জ্ঞানীরা শিক্ষা না জাতীর জন্য বিষ বলে গন্য করেছেন।

– আল্লামা ইকবাল।

১৩৪। এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না।

– নবারুণ ভট্টাচার্য।

১৩৫। তোমারে যে চাহিয়াছে ভুলে একদিন, সে জানে তোমারে ভোলা কি কঠিন।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

১৩৬। প্রেমের বন্যায় বধু হায় দুই কুল আমার ভাঙ্গিয়া ভাঙ্গিয়া যায়।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

১৩৭। বিশ্বাস করুন, আমি কবি হতে আসিনি,আমি নেতা হতে আসি নি-আমি প্রেম দিতে এসেছিলাম,প্রেম পেতে এসেছিলাম-সে প্রেম পেলামনা বলে আমি এই প্রেমহীন নীরস পৃথিবী থেকে নীরব অভিমানে চির দিনের জন্য বিদায় নিলাম।

– কাজী নজরুল ইসলাম।

১৩৮। যে নিজের উপর আস্থা রাখতে পারে না, সে কখনো প্রকৃতপক্ষে অন্য কারও ওপর আস্থা রাখতে পারে না৷

– কাদিনল দ্য য়েটজ

১৩৯। অর্থ যেখানে নাই ভালোবাসা সেখানে দুর্লভ।

– স্যার টমাস ব্রাউন।

১৪০। নারী হচ্ছে টি-ব্যাগের মত। গরম পানিতে দেয়ার আগে তুমি বুঝতে পারবে না সে কতটা শক্তিশালী।

-এলিয়ানর রুজভেল্ট।

১৪১। কোন সন্দেহ নেই যে পরিবার ও আপন ঘরের মাঝেই সমস্ত গুণাবলী, মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ গুণ গুলোর বিকাশ হয়, শক্তিশালী হয় এবং টিকে থাকে।

-উইনস্টন চার্চিল।

১৪২। আপনি যখন উপরের দিকে উঠতে থাকবেন তখন চারদিক থেকে আপনার কাছের মানুষগুলো দূরে সরে যাবে। আবার যখন আপনি শীর্ষে পৌঁছে যাবেন তখন চারদিক থেকে সবাই আপনার বন্ধু হতে থাকবে।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৪৩। অধিকার ছাড়িয়া দিয়া অধিকার রাখিতে যাইবার মত এমন বিড়ম্বনা আর না।

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৪৪। তোমাদের ধনসম্পদ ও পুত্রকন্যা আমার ণৈকট্যলাভের সহায়ক হবে না।

– আল কুরআন।

১৪৫। আমাদের রহস্যময়তার পরীক্ষণে প্রাপ্ত, সবচেয়ে সৌন্দর্যময় জিনিসগুলো হলো শিল্প, বিজ্ঞান এবং বন্ধুত্ব।

-অ্যালবার্ট আইনস্টাইন।

১৪৬। পুরুষের বুদ্ধি খড়গের মতো; শান বেশি না দিলেও কেবল ভারেই অনেক কাজ করতে পারে। মেয়েদের বুদ্ধি কলম-কাটা ছুরির মতো; যতই ধার দাওনা কেনো, তাতে বৃহৎ কাজ চলে না।

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৪৭। অবাধ্য স্ত্রী যার, জীবন তার দুর্বিষহ l

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৪৮। কোন সন্দেহ নেই যে পরিবার ও আপন ঘরের মাঝেই সমস্ত গুণাবলী, মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ গুণ গুলোর বিকাশ হয়, শক্তিশালী হয় এবং টিকে থাকে।

-উইনস্টন চার্চিল।

১৪৯। আমার অন্তরতম অন্তরে, যেখানে আমি একেবারে একা, সেখানে তোমার ঝর্ণাধারা কখনও শুকোবার নয়।

– পার্ল এস বাক।

১৫০। তুমি যদি কাউকে ভালোবাস,তবে তাকে ছেড়ে দাও। যদি সে তোমার কাছে ফিরে আসে,তবে সে তোমারই ছিল।আর যদি ফিরে না আসে,তবে সে কখনই তোমার ছিল না।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৫১। যে ভালোবাসা পেল না, যে কাউকে ভালোবাসতে পারল না, সংসারে তার মতো হতভাগা কেউ নেই।

– কিটস্।

১৫২। নারীর প্রেমে মিলনের সুর বাজে , আর পুরুষের প্রেমে বিচ্ছেদের বেদনা ।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৫৩। যখন কোন পুরুষ কোন নারীকে ভালবাসে, তখন সে তার জন্য সব কিছু করতে পারে। কেবল তাকে ভালবেসে যেতে পারেনা।

– অস্কার ওয়াইল্ড।

১৫৪। আবেগ আর বিবেক দুইটাই ভিন্ন জিনিস। আবেগ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ক্ষতিকর আর বিবেক মানুষকে ভালো মন্দ বাছাই করতে শেখায়। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে আমরা সবাই আবেগের কাছে বিবেক হারাই কিন্তু বিবেকের কাছে আবেগ হারাই না।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৫৫। দুটি জিনিস ছাড়া মানুষ সব লুকাতে পারে। এ দুটি হচ্ছে যদি সে মাতাল হয় আর যদি প্রেমে পড়ে।

– এনাট ফেন্স।

১৫৬। মনে রাখা উচিত, যে বন্ধু সুসময়ে ভাগ বসায়

আর দুঃসময়ে ত্যাগ করে চলে যায়,

সেই বন্ধুই, তোমার সবচেয়ে বড় শত্রু..!

-পণ্ডিত চাণক্য।

১৫৭। বন্ধু বা বন্ধুত্ব হওয়ার সময়, ধীরে ধীরে হওয়া ভালো । আর বন্ধুত্ব হয়ে গেলে প্রতিনিয়ত ভাবে মেলামেশা করো।

-সক্রেটিস।

১৫৮। বিশ্বাস এবং আশ্বাস ছাড়া বন্ধুত্ব হয় না।

-রবার্ট ক্লেয়ার।

১৫৯। গোলাপ যেমন একটি বিশেষ জাতের ফুল, বন্ধু তেমনি একটি বিশেষ জাতের মানুষ।

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৬০। বাস্তবতা নিছক একটি মায়া, যদিও এটি খুব স্থায়ী ।

-আলবার্ট আইনস্টাইন।

১৬১। বাস্তবতাকে যথেষ্ট কল্পনা দিয়ে মারানো যায় ।

-মার্ক টোয়েন।

১৬২। নতুন দিনটির সাথে নতুন শক্তি এবং নতুন বিচার আসে।

– এলেনোর রুজভেল্ট।

১৬৩।অর্থ যেখানে নাই ভালোবাসা সেখানে দুর্লভ ।

-টমাস ব্রউন

১৬৪। ভালোবাসা দিয়ে ভালোবাসা না পেলে তার জীবন দুঃখের ও জরতার ।

-কাজী নজরুল ইসলাম।

১৬৫। মানুষ মানুষের দ্বারা যত বেশি কষ্ট পায় স্বপ্ন তত বড় হয়।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৬৬। কোন কিছুই পূর্বনির্ধারিত নয়, মনের বিশ্বাস থাকে আপনি অনেক দূর পর্যন্ত এগিয়ে যেতে পারবেন ।

-স্টিফেন হকিং।

১৬৭। যতদিন ভবে, না হবে না হবে, তোমার অবস্থা আমার সম। ঈষৎ হাসিবে, শুনে না শুনিবে বুঝে না বুঝিবে, যাতনা মম।

-কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার।

১৬৮। যদি যেতে চাও, যাও আমি পথ হবো চরণের তলে না ছুঁয়ে তোমাকে ছোঁব ফেরাবো না, পোড়াবোই হিমেল অনলে।

– হেলাল হাফিজ

১৬৯। মেয়েরা প্রথমবার যার প্রেমে পড়ে তাকে ঘৃনা করলেও ভুলে যেতে পারে না। পরিষ্কার জল কাগজে পড়লে দেখবেন শুকিয়ে যাওয়ার পড়েও দাগ রেখে যায়।

– সমরেশ মজুমদার।

১৭০। স্বার্থপরতা মানব জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ অভিশাপ।

– উইলিয়াম ই. গ্ল্যাডস্টোন ।

১৭১। স্ত্রীকে সপ্তাহে একদিন ফুচকা খাওয়াতে এবং মাসে একদিন ঘুরতে নিয়ে গেলে স্বামীর শরীর সাস্থ ভালো থাকে।

-সমরেশ মজুমদার।

১৭২।  শিক্ষার মহৎ উদ্দেশ্য জ্ঞান নয় বরং তা হলো বাস্তবিক কাজ।

-হার্টবার্ট স্পেন্সার।

১৭৩। যেই দেশে দেশপ্রেমিকের চেয়ে জ্ঞানীগুণী বেশি জন্মায় সেই দেশে শান্তির চেয়ে অশান্তিই বেশি থাকে।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৭৪। হাত ধরো, হাত ধরো- আমি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরিবর্তে এনে দেবো তৃতীয় পৃথিবীর শ্রেনীহীন কবিতার ভুবন।

– রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ।

১৭৫। সকল জীবকে একদিন মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করিতে হইবে।

-আল-কুরআন।

১৭৬। মা যেমন তাঁর নিজ পুত্রকে নিজের জীবন দিয়ে রক্ষা করে তেমনি সকল প্রাণীর প্রতি অপরিমেয় মৈত্রীভাব পোষণ করবে।

– গৌতম বুদ্ধ।

১৭৭। সোনায় যেমন একটু পানি মিশিয়ে না নিলে গহনা মজবুত হয় না, সেইরকম ভালবাসার সঙ্গে একটু শ্রদ্ধা, ভক্তি না মিশালে সে ভালবাসাও দীর্ঘস্থায়ী হয় না।

-নিমাই ভট্টাচার্য।

১৭৮। বিশ্বে দুট শক্তি রয়েছে – এগুলো হচ্ছে অসি ও মন। কিন্তু পরিনামে এ দুয়ের দ্বন্দ্বে মনের কাছে অসি শেষ পর্যন্ত পর্যদুস্ত হয়।

– নেপোলিয়ন বোনাপার্ট।

১৭৯। নিজেকে পরিশুদ্ধ করতে হলে নিজের ক্ষমতা সম্পর্কে জানতে হবে।

– ফ্রান্সিস টম্পসন।

১৮০। যে ধৈর্য ধরতে জানে, তার জন্য আনন্দঘন প্রশান্তি অপেক্ষা করে৷

-জন লিলি

১৮১। আদর্শের সংঘাত বাঁধলে আপন জনকেও দূরে ঠেলে দাও৷ আদর্শের ক্ষেত্রে কোনোমতেই আপোস চলে না৷

– হেররিক

১৮২। আমরা ভারত থেকে ডিম কিনি। যেদিন আমরা ভারতে ডিম বিক্রি করতে পারবো সেইদিন আমাদের অর্থনীতির চেহার পাল্টে যাবে।

– ড. মুহাম্মদ ইউনূস।

১৮৩। পুরুষের সাথে নারীর অংশগ্রহণ ছাড়া কোন সংগ্রামই সফল হতে পারে না।

-মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ।

১৮৪। প্রকৃত প্রেমিক হলেই ভালোবাসা পাওয়া যাবে না, ভালোবাসা পেতে হলে আপনাকে হতে হবে প্রকৃত অভিনেতাও।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৮৫। হৃদয়ের সবটুকু দিয়ে তোমার কাছে মিনতি করছি, তোমার মন আর আমাদের মধ্যেকার ভালবাসার সবটুকু আমাকে জানতে দিও।

– সম্রাট অষ্টম হেনরি।

১৮৬। কোন কাছি বা দড়ি অত জোরে আকর্ষণ করতে বা অত শক্ত করে বাঁধতে পারে না, প্রেম যা একটি মাত্র সুতো দিয়ে পারে।

–বার্টন।

১৮৭। যে মানুষ নির্দোষ বন্ধু খুঁজতে থাকে। তাকে সারা জীবন বন্ধু ছাড়া থাকতে হয়।

-কায়সার খসরু।

১৮৮। বাস্তব জগতের একটি সীমানা আছে, কিন্তু কল্পনার জগতের কোন সীমা নাই ।

-জ্যঁ জ্যাক রুশো।

১৮৯। ছেলেরা বিয়ে করে কারণ তারা জীবন নিয়ে ক্লান্ত আর মেয়েরা করে কারণ হয়তো তারা কৌতূহলী বা বিমর্ষ।

-অস্কার ওয়াইল্ড।

১৯০। এ সখি বিরহ মরন নিরদন্দ্ব।

-গোবিন্দ দাস।

১৯১। আঘাত হলো এক ধরনের জ্বালানী।

-রেদোয়ান মাসুদ

১৯২। প্রেম মানুষকে শান্তি দেয় কিন্তু স্বস্তি দেয় না।

–বায়রন।

১৯৩। বিশ্বাস এবং আশ্বাস ছাড়া বন্ধুত্ব হয় না।

-রবার্ট ক্লেয়ার।

১৯৪। বিশ্বাস জীবনকে গতিময়তা দান করে, আর অবিশ্বাস জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে ।

-জন মিল্টন।

১৯৫। সহনশীলতা এমন একটি গুণ যা থেকে সাফল্য আসবেই৷

– জুভেনাল

১৯৬। মিথ্যাবাদীর শাস্তি এই নয় যে, তাকে কেউ বিশ্বাস করে না, সে নিজেই কাউকে বিশ্বাস করতে পারে না।

– জর্জ বার্নার্ড শ

১৯৭। পৃথিবীতে সব চেয়ে অসহায় সে, যে নিজের রাগ,অভিমান, কষ্ট কাউকে দেখাতে পারেনা একটু চিৎকার করে কাঁদতে পারেনা শুধু চোখের জল লুকিয়ে হাসে।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

১৯৮। একজন ভাল মানুষ হবার জন্যে ঈশ্বরে বিশ্বাস করা আবশ্যক নয়। একদিক থেকে প্রচলিত ঈশ্বরের ধারণা পুরাতন হয়ে গেছে। একজন মানুষ ঈশ্বরে বিশ্বাস না করেও আধ্যাত্নিক হতে পারেন। কাউকে উপাসনালয়ে গিয়ে দান করেই ধর্ম পালন করতে হবে এমন কথা নেই; কারো জন্যে প্রকৃতিই হতে পারে উপাসনালয়। পৃথিবীর ইতিহাসে উৎকৃষ্ট কিছু মানুষ ছিলেন যারা ঈশ্বর বিশ্বাসী ছিলেন না; আবার কিছু নিকৃষ্টতম কাজ করা হয়েছে ঈশ্বরের নামে।

-পোপ ফ্রান্সিস।

১৯৯। আমাদের পরিবারে মায়ের ভালোবাসা সবসময় সবচেয়ে টেকসই শক্তি। আর তার একাগ্রতা, মমতা আর বুদ্ধিমত্তা আমাদের মধ্যে দেখে আনন্দিত হই।

– মিশেল ওবামা।

২০০। আমার মা মনে করেন আমিই সেরা আর মা মনে করেন বলেই আমি সেরা হয়ে গড়ে উঠেছি।

-দিয়াগো ম্যারাডোনা।

২০১। অতিরিক্ত স্বাধীনচেতা মেয়েগুলো ব্যক্তিগত জীবনে নিজেও সুখী হয় না, পরিবারকেও সুখী হতে দেয় না।

-রেদোয়ান মাসুদ

২০২। সংসারে জ্বালা-যন্ত্রণা এড়াবার প্রধান উপায় হচ্ছে, মনের ভেতর আপন ভুবন সৃষ্টি করে নেওয়া এবং বিপদকালে তার ভেতর ডুব দেওয়া। যে যত বেশি ভুবন সৃষ্টি করতে পারে, যন্ত্রণা এড়াবার ক্ষমতা তার ততই বেশি হয়।

-বারট্রান্ড রাসেল।

২০৩। আমি থাকি তোমার প্রহরী তোমাকে যখন দেখি, তার চেয়ে বেশী দেখি যখন দেখিনা।

– সুনীলগঙ্গোপাধ্যায়।

২০৪। আমার যাহা ইচ্ছা তাহাই করিতে পারি, তোদের বিশ্বাস নাই, কাজেই ফলও হয় না।

-লোকনাথ ব্রহ্মচারী।

২০৫। মৃত্যুর চেয়ে কঠিন হচ্ছে জীবন। কেননা দুঃখ-কষ্ট বিপদ আপদ কেবল জীবনেই ভোগ করতে হয় মৃত্যু তা থেকে মুক্তি দেয়।

-সক্রেটিস।

আরও পড়ুন… শিক্ষামূলক উক্তি

উক্তি বা বাণী চিরন্তনী গুলো ভালো লাগলে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিন।